(৯): প্রবাসে বাঙ্গালী নারীর মর্যাদা

সিনোপসিস (৯): প্রবাসে বাঙ্গালী নারীর মর্যাদা :শৈশবে যে ছেলে ঘরের কোনায় দাঁড়িয়ে দেখেছে তার বাবা তার মাকে পিটাচ্ছে, সেই ছেলে বড় হয়ে বাবার  উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত স্বহজাতধর্ম হিসাবে নিজ স্ত্রীকে পিটিয়ে দায়ীত্ব পালন করছে। একই ছেলে বাইরে গিয়ে অসহায় বাঙ্গালী নারীর মুখে-গায়ে এসিড মারছে। সেই ছেলেই বখাটের মতো রাস্তায় দাঁড়িয়ে ভর্ৎসনা আর কুৎসা রটাচ্ছে, কোন এক বাঙ্গালী রমনীর নামে ।

এই চিত্র প্রাচীন বাংলার সামাজিক নিয়ম হয়ে আজও টিকে আছে ঘরে ঘরে। যে দেশের রাজনীতি আর সমাজনীতি রমনীরা কন্ট্রোল করে, সেই দেশের এই চিত্র কি নিতান্তই আক্ষেপের নয়? সত্যিই আক্ষেপের! বাঙ্গালীরা তাদের আদল বদলাতে পারে না। আর পারে না বলেই দেখা যায়, উন্নত বিশ্বের উন্নত নগরীতে বাস করেও বাঙ্গালী পুরুষরা হাতুড়ি দিয়ে মাথায় আঘাত করে স্ত্রী হত্যা করছে। পিটিয়ে হত্যা করে আগুনে জ্বালিয়ে মারছে। সন্তানের সামনে তার মাকে পিটাচ্ছে। এই পুরুষরাই ঘরে নিজের বউকে পিটাচ্ছে আর বাইরে অন্য রমনীর প্রতি কটুক্তি করছে । কিন্তু কেন এমন হচ্ছে? আমেরিকা ক্যানাডার ইংল্যান্ড’র মত দেশ যেখানে নারী অধিকার সর্বাগ্রে বিবেচিত হয়, এখানে বসবাস করেওতো শেখা সম্ভব। এত বছর ধরে যে অন্ধত্ব আর কুশিক্ষা-অশিক্ষা আমাদেরকে তেড়ে বেড়াচ্ছে সর্বক্ষন, তার থেকে বের হওয়া এত সহজ নয়। সুতরাং নারীর মর্যাদা বোঝার জন্য , নারীকে মর্যাদা দেওয়ার জন্য রাস্তা একটাই “ শিক্ষা “

There goes a proverb that ‘black will take no other hue. ‘Back home in Bangladesh, our youngsters used to see their dads beating their moms. Naturally, learning by examples, they follow the suit here in Canada. The youngsters of Bangladesh have already demonstrated their expertise in eve teasing, acid throwing and so on. Interestingly, this is the situation in a country where women are the leaders of governments.

The Western societies of Canada, America and UK, have established the rights of women in all spheres. Living in their midst, how could our people beat their spouses? Could they not learn anything from the examples of the women’s position in these countries?

A careful examination of the status of women reveals that the basic ingredient of their development is their education. This is also the antidote of all the ills with the women of our community. So ‘let them be in schools’.

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*