মেরী ক্রীসমাস-বাংগালীর বিজয় ও শুভ নববর্ষ

ক্যানাডাবিডিনিউজ ডটকমঃ মেরী ক্রীসমাস- আর মাত্র ক দিন পরই পৃথিবীর লক্ষ লক্ষ  মানুষ পালন করবে বছরের অনেক কাংখিত দিন ক্রীসমাস  বা বড় দিন । শুধু যে খৃস্টানদের কাছে এই দিন পবিত্র এমন নয় , মুসলমানদের কাছেও এর সম মর্য্যাদা রয়েছে । তাই মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশেই রাষ্ট্রীয় ভাবে বিশাল আয়োজন হয়েছে এই দিনকে লক্ষ্য করে।

এই পবিত্র দিনকে সামনে রেখে পৃথিবীর তাবত মানুষ ভাতৃত্ব বোধে জেগে উঠুক , যীশুর শান্তির বানীতে  পৃথিবীর সকল মানুষের অন্তর কলংক মুক্ত হয়ে এক নিস্পাপ নতুন  পৃথিবীর জন্ম হউক , বড় দিনের এই খুশীতে আমাদের পক্ষ থেকে অসংখ্য মুবারকবাদ সবাইকে । মেরী ক্রীসমাস।

শুভ নববর্ষঃ আর মাত্র ক দিন পরই নব বর্ষ, পুরাতনের বিদায় আর নতুনকে বরনের পালা , বিগত দিনের কলুষতাকে জলাঞ্জলী দিয়ে  পৃথিবী এগিয়ে যাবে সম্মুখে । নব বর্ষে ক্যানাডাবিডিনিউজর বয়স হবে মাত্র ৬ মাস , এরই মধ্যে অনেক প্রতিশ্রুতি নেওয়া হয়েছে এবং কাজও চলছে , আগামী বছরের দীর্ঘ প্রতিশ্রুতি রয়েছে । নব বর্ষ  সবার জন্য নিয়ে আসুক আনন্দ আর শান্তি, এই কামনা থাকলো ।

বাংগালীর বিজয়ঃ  ডিসেম্বরবাংগালীর বিজয়ের মাস।বিজয় দিবস উপলক্ষে সমগ্র জাতির সাথে আমরা প্রবাসীরাও সম্পৃক্ত-আমাদের অন্তর আন্দোলিত । ৩৯ বছর আগে দীর্ঘ নয় মাসের  মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে এই মাসে আমরা অর্জন করেছিলাম আমাদের নিজস্ব মানচিত্র একটি স্বাধীন সার্বভৌম দেশ।১৬ই ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী আত্মসমর্পণ করে স্বাধীনতাকামী বাঙালির অদম্য শক্তির কাছে। সূচিত হয় চূড়ান্ত বিজয়

১৯৭১ সালের এই মাসে দীর্র্র্র্ঘ ২৪ বছরের শোষণ বঞ্চনা আর অত্যাচার-নির্যাতনের বিরুদ্ধে নয় মাস যুদ্ধ করে বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে উপনীত হয় দামাল বাঙালি। এই মাস বাঙালির গৌরবদীপ্ত বিজয় আর অহঙ্কারের মাস। মুক্তিযুদ্ধের পুরো নয় মাস ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালালেও এই ডিসেম্বরে এসে পাকবাহিনী এদেশের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের শেষ করে দিতে তৎপর হয়। তালিকা করে তারা হত্যা করে দেশের খ্যাতনামা বুদ্ধিজীবীদের। ঢাকার রায়ের বাজার ও মিরপুরে তাদের নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। শেষ পর্যন্ত এই ডিসেম্বর মাসেই শত্রুরা পর্যুদস্ত হতে বাধ্য হয়। আত্মসমর্পণ করে মেনে নেয় বাংলাদেশের স্বাধীনতা। ১৬ই ডিসেম্বর বিকালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পাক বাহিনীর আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে উদিত হয় বাংলাদেশের স্বাধীনতার লাল সূর্য। এরপর স্বাধীন স্বভূমে ফিরে আসে ভারতে শরণার্থী হিসেবে বসবাস করা এক কোটি মানুষ। প্রবাসী মুজিবনগর সরকার দেশে ফিরে এসে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব নেয়। প্রতিবছর বিজয়ের মাস এলে জাতি যেমন বিজয়ের আনন্দে উদ্বেলিত হয় তেমনি শোকে মুহ্যমান হয়ে মাথা নোয়ায় মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্মরণ করে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*